বর্তমান সরকার সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে : এ্যাড সুজিত

খবর বিজ্ঞপ্তি, ডেই‌লি সুন্দরবন: বাংলাদেশ  আওয়ামী লীগ খুলনা জেলা শাখার  সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত অধিকারী বলেছেন সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বর্তমান সরকার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এ সরকারের আমলে দেশ থেকে মাদক এবং সন্ত্রাস নির্মূলে ক্রীড়াঙ্গনের পাশাপাশি সাংস্কৃতিক চর্চায় যাতে সাধারণ মানুষ এগিয়ে আসে এ কারনে নানামূখী পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। গ্রামের মানুষ যদি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চার মধ্যে না থাকে তাহলে তারা সন্ত্রাস মাদক এবং নানা মূখী অপকর্মে লিপ্ত হবে। কিন্তু বর্তমান শেখ হাসিনা সরকার এদেশ থেকে মাদককে চিরতরে নির্মূলের জন্য ক্রীড়াঙ্গনের উন্নতির পাশাপাশি সাংস্কৃতিক চর্চা অব্যহত রেখেছে এবং এ কারনে সারাদেশে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে ব্যাপক সাড়া জেগেছে। তিনি আজ  ৬ ফেব্রুয়ারী রূপসা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী ডোবা নবারুন সংঘে ৪৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন উদযাপন কমিটির আহবায়ক নিখিল মল্লিক। শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব ব্রজেন মজুমদার। ডোবা নবারুন সংঘের সভাপতি চঞ্চল অধিকারীর সভাপতিত্বে রাজিব মহলী ও অথৈ দাশের পরিচালনায় ডোবা ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন বিশিষ্ট শিল্পপতি প্রফুল্ল কুমার রায়, এ্যাড. সুজিতের সহ ধর্মীনী রমা রানী অধিকারী, জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক এম এ রিয়াজ কচি, ত্রান ও পুর্নবাসন বিষয়ক সম্পাদক শ্রীমন্ত অধিকারী রাহুল, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মোজাফফর মোল্লা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম লাবু, উপ প্রচার সম্পাদক খায়রুল আলম, উপজেলা আওয়ালীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার আবুল কাশেম ডাবলু, সমাজ সেবক চন্ডিবর মালী, শান্তিরাম মল্লিক, জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য অমিয় অধিকারী। অনুষ্ঠাটির সার্বিক পৃষ্টপোষক ছিলেন ঘাটভোগ ইউপি চেয়ারম্যান সাধন অধিকারী।

বক্তৃতা করেন টিএসবি ইউপি চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর শেখ, পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শক্তিপদ বসু, প্যানেল চেয়ারম্যান বিনয় কৃষ্ণ হালদার, যুবলীগ নেতা আবু আহাদ হাফিজ বাবু, বরুন দাশ, নরেশ দাস, পংকজ শিকদার, প্রভাষ বাকচী, লিটন বাকচী, উদ্ভব দাস, দিপ্তীশর বিশ্বাস, সুজন কুমার দাস, শ্রমিকলীগ নেতা তপন কুমার বিশ্বাস রতন মন্ডল, হাবিবুর রহমান, তাপস বিশ্বাস, নীলমনি বিশ্বাস, হীরন শিকদার, অনাদী রায় প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *